৩০ মে, ২০২১ , রবিবার

কবিতা
স্বপ্নকমল সরকার
যম

যখনি বলেছি তাকে, থাকো তুমি দূরে দূরে সরে
অমনি সে এসে দাঁড়িয়েছে শিয়রে, কত যেন চেনা!

                   ‘বলোনি কেন আগে তাড়াতাড়ি এসে যাবে
                   বৃষ্টি-বজ্রপাত মেঘে অসময়ে হঠাৎ চমকাবে?’

প্রান্তরের ছড়ানো কুয়াশা সরিয়ে আরো কাছে আসে
চোখে চোখ রেখে বলে সে, ‘হাত ধরো,
                   এখানে আঁধার বড়,
সময় হয়েছে, চলো নিয়ে যাই সেই ঈশ্বরী সকাশে…’

বলি, ‘এই আলোআঁধারি একান্ত আমারই, তাকে ভালোবাসি
মুঠো মুঠো জোনাকির আলো
রোজ জ্বালি আমি কালো সে প্রান্তরে
আলো মাখি, ভরে রাখি সব সোনার কৌটোয়…
সময় এখনও যে বাকি, রয়ে গেল নাকি
অপূর্ণ অধরা মন,
                   কীকরে যাই যে এখন?
যদি ভালোবাসা শেখো, তবে পড়াই নতুন পাঠক্রম’…

সে বোঝেনি আমাকে, জানেনা প্রেম বলে কাকে,
শুধু ডাকে ‘আমি শুধু তোমাকেই চাই,
পৃথিবীতে পড়ে থাক অপূর্ণ স্বপ্নের ছাই
চলো, যাই সেই এক অমৃতের দেশে,
আজ এই তৃষিত বৈশাখে…

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
সাম্প্রতিক পোষ্ট
বর্ষা , উমামাসি আর প্রেমের গপ্পো- হারিয়ে যাওয়া গানের খাতা- যশোধরা রায়চৌধুরী

জল ঠেলতে ঠেলতে দিন কেটে যায় তবু… রোমান্স মরে গেলেও, ওই কাদা জল
ঘেঁটেই চলি তারপর। বাজারে দোকানে যাওয়া… ফিরে আসা হাঁটুজলে। এসে পায়ে
দেখি কার চিঠি লেপটে আছে।

Read More »