কবিতা
অমিত সাহা
পাথরের প্রলাপ

নর্তকীর নিপুণ মিশেছে যে নূপুরে তাকে কিছু সমতল উপহার দিয়ো,
ভয়ের ভীষণ আছে যে মুখোশে তাকে করে তোলো আলোর ভিখিরি!
তারাদের সর্বনাশ খুঁজতে গিয়ে যে ঘুড়ি ভুলে গেছে আঙুল-আদর
তাকে ফিরিয়ে না এনে, উড়তে দাও মহাকাশ ছাড়িয়ে… মহাকাল-পথে!
এত কিছু উপদেশ সহ্য করতে না পারো তাহলে একটু বিরক্ত-সচেতন হও!

আমি অচেতন হয়ে কান পাতি পাথরের প্রলাপ শুনব বলে…
দেখি কাঠবেড়ালিকে দ্রুত রাস্তা পার করে দিচ্ছে প্রেমিক-পেয়ারা!

সাম্প্রতিক পোষ্ট